আতংক কাটিয়ে আগরতলায় পাঁচ বিমানের ওঠা-নামা , ১৫২ জনের নমুনা সংগ্রহ

প্রসেনজিৎ দাস, আগরতলাঃ তুলনামূলক স্বাভাবিক হয়েছে বিমান পরিষেবা। আপাতত আগরতলা-কলকাতা রুটে চারটি বিমান ওঠা-নামা করেছে। একটি বিমান গুয়াহাটি থেকে আগরতলায় এসে কলকাতার উদ্দেশে উড়ে গেছে। সোমবার কলকাতা এবং গুয়াহাটি মিলিয়ে ৭০১ জন যাত্রী আগরতলায় এসেছেন এবং ৭০৭ জন যাত্রী কলকাতার উদ্দেশে যাত্রা করেছেন।

এদিন এমবিবি বিমানবন্দরে যাত্রীদের মধ্যে ১৫২ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। করোনা-র প্রকোপে লকডাউন শুরু হওয়ার আগে আগরতলার এমবিবি বিমাবন্দরে প্রতিদিন বিভিন্ন রুটে ১৮টি বিমান ওঠা-নামা করেছে।

করোনা পরিবহণ ক্ষেত্রে মারাত্মক প্রভাব ফেলেছে। বিশেষ বিমান পরিষেবা আগরতলা সেক্টরে মাঝে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল। কিন্তু আজ থেকে কিছুটা স্বাভাবিক হয়েছে পরিষেবা। এয়ার এশিয়া, ইন্ডিগো এবং এয়ার ইন্ডিয়া আজ আগরতলা সেক্টরে বিমান পরিষেবা দিয়েছে। করোনা-র প্রকোপে লকডাউন শুরু হওয়ার আগে আগরতলা থেকে কলকাতা, গুয়াহাটি, দিল্লি, বেঙ্গালুরু এবং ইমফল প্রতিদিন সরাসরি বিমান পরিষেবা চালু ছিল। মোট ১৮টি বিমান প্রতিদিন ওঠা-নামা করেছে এমবিবি বিমানবন্দরে। কিন্তু বর্তমানে তা কমে দাঁড়িয়েছে পাঁচে। তবে দিল্লি, বেঙ্গালুরু সরাসরি বিমান শুরু হয়নি। জুলাইয়ের আগে ওই রুটে সরাসরি বিমান শুরু হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

আজও বিমান বন্দরে করোনা মোকাবিলায় এলাহি আয়োজন করা হয়েছে। পারস্পরিক দূরত্ব বজায় রেখে দাঁড়ানো ছাড়াও যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি সমস্ত ব্যবস্থা করেছে এয়ারপোর্ট অথরিটি অব ইন্ডিয়া। এদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এয়ার এশিয়া-র একটি, ইন্ডিগো-র তিনটি এবং এয়ার ইন্ডিয়া-র একটি বিমান ওঠা-নামা করেছে। এখন থেকে প্রতিদিন পাঁচটি বিমান ওঠা-নামা করবে বলে জানা গেছে।

Leave a Comment