ঈদগাঁও বাজারে ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে সাড়ে ৩ লাখ টাকা ছিনতাই

সায়মন সরওয়ার কায়েম, কক্সবাজার প্রতিনিধি:
কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও বাজারে এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে সাড়ে তিন লক্ষ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ছিনতাইকারী চক্রের ব্যবহৃত একটি মোটর বাইক জব্দ করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে এলাকাবাসী। ৩০ মে রাত আনুমানিক সাড়ে ৯ টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে বাজারের দক্ষিণ পাশে ফরাজী পাড়া রোডের সিএনজি স্টেশনের সামনে। আহত ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ ও আত্মীয় স্বজন।জড়িতদের ধরতে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে। ছিনতাইয়ের শিকার ব্যবসায়ী ঈদগাঁও মধ্যম মাইজ পাড়া এলাকার জাবের সওদাগরের ছেলে ছলিম বলে জানা গেছে। প্রত্যক্ষদর্শী ও ভিকটিমের সাথে কথা বলে জানা যায়, তিনি পেশায় একজন গরু এবং মাংস ব্যবসায়ী। প্রতিদিনের ন্যায় বাজার এবং সওদাগর পাড়া এলাকার ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে আমদানি উত্তোলন করে মোটর বাইক যোগে বাড়ী ফেরার পথে বর্ণিত স্থানে পৌঁছলে আগে থেকেই উৎপেতে থাকা তিনজনের একটি ছিনতাইকারী চক্র তাকেসহ বাইকের পিছনে থাকা তার আরো দুই আত্মীয়কে গাড়ী থামানোর সংকেত দেয়। গাড়ী থামাতে না থামাতেই উপর্যপুরী মারধর করে ছলিমের পকেট এবং লুঙ্গির খোঁচায় রাখা ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা ছিনতাই করে নেন । তাদের শোর চিৎকারে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা এগিয়ে আসলে তাদের ব্যবহৃত একটি মোটরসাইকেল ফেলে সওদাগর পাড়া আড্ডাবাড়ী সড়কে দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়। ভিকটিম ছলিম জানান, জালালাবাদ ইউনিয়নের খাদেমর চর এলাকার মৃত নুরুল আলমের ছেলে রাশেল প্রকাশ বাইগ্যার নেতৃত্বে বাজার এলাকার বসবাস করা রোহিঙ্গা ফেরদৌসের ছেলে রুহুল আমিন, ইউছুপের খীল এলাকার সোহেল নামের তিন জন ছিনতাইয়ের ঘটনাটি ঘটিয়েছে। তাৎক্ষণিক খবর পেয়ে ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোঃ আসাদুজ্জামানের নির্দেশে এএসআই নিজাম উদ্দিনসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে স্থানীয়দের কাছ থেকে মোটরসাইকেলটি বুঝিয়ে নেন। এবং সম্ভাব্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হয়। ঘটনাস্থলে থাকা এএসআই নিজাম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

Leave a Comment