একদিন

সেন্টু রঞ্জন চক্রবর্তী
(আগরতলা 28/04/2020)

একদিন
কোনো এক সকালে
সোনালী রুদ্দুর আমাদের দরজায় এসে
কড়া নাড়বে,
আমাদের ডেকে তুলে
শুনিয়ে যাবে
বেঁচে থাকার
স্বপ্ন দেখার
আগামীর অমোঘ বাণী |

আসন্ন সে সূর্যোদয়ের অপেক্ষায়
মাঝে মাঝে উঁকি দিয়ে
জানালার ঈষৎ ফাঁকে তাকিয়ে দেখি
আঁধার কেটেছে কিনা,
যতোদূর চোখ যায়
চেয়ে থাকি
আর ভাবি
এ বিবর্ণ সময়ের যবনিকা কবে হবে |

এবার বসন্ত গেছে
একদম নিরানন্দ
হলুদ পাড়ের শাড়িগুলি
বড্ডো এলোমেলো হয়ে আছে আলনার খোপে,
রাখালের বাঁশি
মাঝি মাল্লার ভাটিয়ালি
বাসন্তী উৎসবে আকাশ ছোঁয়া ঘুড়ি
সবি থেমে গেছে নিরানন্দ আবহে |

বাউলের একতারায় অনেক ধূলো
শুধুই
হৃদয়ের তানপুরায় কষ্টের সুর
বাতাসে ভেসে আসে,
হরিবাবুর ঘাটে নৌকাগুলি কি অসহায়
অল্পজলে চেয়ে আছে
কেউ যদি একবার ওপারে নিয়ে যেতো,
গুলুইগুলিতে উঁই পোকাদের
একক সাম্রাজ্যবাদের বিস্তার ঘটেছে এরইমাঝে |

অনেক ক্ষতির পরেও
দৃঢ় বিশ্বাস নিয়ে জেগে আছে জনপদ
এ কালোদিন কেটে যাবে সহসা,
পূব আকাশের বুক থেকে সরে গেছে
ঘন মেঘের আনাগোনা
ধ্বংসের ক্ষত বুকে নিয়ে
সোনালী দিনের সাহসী মানুষেরা
সহসাই গেয়ে উঠবে জীবনের জয় গান |

Leave a Comment