কুমিল্লার সন্তান ডাক্তার ফেরদৌস নিউইয়র্কে বাড়ি বাড়ি গিয়ে দিচ্ছেন করোনা রুগীদের চিকিৎসা

ডেস্ক নিউজঃ

ডাক্তার ফেরদৌস খন্দকার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক প্রবাসী বাংলাদেশী কুমিল্লার দেবিদ্বারের কৃতি সন্তান।

নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের বাংলাদেশী কমিউনিটির জনপ্রিয় চিকিৎসক নিউইয়র্কের মৃত্যুপুরীতে বসবাস করেও এক মুহুর্তের জন্য ভুলেননি রোগীর সেবা দিতে। কাজটি খুবই ঝুকিঁপূর্ন জেনেও জীবনের মায়া ত্যাগ করে হাসপাতাল নয়। খোদ বাড়ি বাড়ি গিয়ে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। ঘুরছেন নিউইয়র্ক এর অলি গলিতে মানুষকে সেবা করার জন্য। সাথে পৌঁছে দিচ্ছেন খাবার ও ঔষধ।
এতেই থেমে থাকেননি ফেরদৌস খন্দকার। নিউইয়র্কে আন ডকুমেন্টড বাংলাদেশী কমিউনিটির প্রত্যেকজনকে দিচ্ছেন ১০০ ডলার করে গিফট কার্ড।
হাজার হাজার মাইল দূরে নিউইয়র্ক শহরে থাকার পাশাপাশি করোনা রোগীদের দিন-রাত চিকিৎসাসহ সেবা দিয়ে আসলেও একটি দিনের জন্য ভুলে যাননি বাংলাদেশের মানুষের কথা।
তিনি চীন থেকে আগামী সপ্তাহে ৮ হাজার ৫০০ N95 মাস্ক নিজ খরচে বাংলাদেশের চিকিৎসকদের জন্য পাঠাচ্ছেন। জন্মভূমি কুমিল্লা দেবিদ্বারের মানুষদেরও ভুলেননি। দেবিদ্বারের গরিব, অসহায় মানুষদের জন্য পাঠাচ্ছেন আর্থিক সহায়তা। তার একটাই কথা যে দেশের মাটিতে আমার জম্ম। সেই দেশের মানুষের কঠিন সময়ে সাধ্যমত এগিয়ে আসা আমার দায়িত্ব। দুঃসময় সারাজীবন থাকবেনা। আমার ক্ষুদ্র প্রয়াসে আল্লাহ যেন আমাকে ক্ষমা করে দেন। দরকার হলে দেশে এসে মানুষের চিকিৎসা সেবা দেওয়ার জন্য প্রস্তুত আছেন বলে জানান তিনি।
উল্লেখ্য, ডা. ফেরদৌস খন্দকার দীর্ঘ ২৫ বছর নিউইয়র্কে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছেন। তিনি কুইন্স এলাকার এলমহার্স্ট হাসপাতালের একজন চিকিৎসক এবং পাশাপাশি তার আউটপেশেন্ট মেডিক্যাল সেন্টার রয়েছে।

এমন একজন ফ্রন্ট লাইনের করোনা যোদ্ধার জন্য শত সহস্র সালাম। আল্লাহ পাক আপনার সহায় হোক।