নাঙ্গলকোটে পিতা-পুত্রসহ আরও ১৬ জনের করোনা শনাক্ত

নাঙ্গলকোট প্রতিনিধিঃ কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে বাবা-ছেলেসহ ১৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া আবদুস ছাত্তার ভূঁইয়ার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এ নিয়ে উপজেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১১২ জনে দাঁড়িয়েছে। আক্রান্তদের বাড়ি লকডাউন করে হোম আইসলোশানে রেখে চিকিৎসা শুরু হয়েছে।

নতুন আক্রান্তদের মধ্যে শনিবার (১৩ জুন) দিবাগত রাত ২টার দিকে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া উপজেলার জোড্ডা পূর্ব ইউনিয়নের হানগড়া গ্রামের আবদুস সাত্তার (৬০) রয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লামইয়া সাইফুল এর নির্দেশক্রমে স্বাস্থ্য বিভাগের টিম মৃত ব্যক্তি ও তার পরিবারের ৮ সদস্যের নমুনা সংগ্রহ করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন অনুসারে মরদেহ দাফন করে। আবদুস সাত্তারের মৃত্যুর ১২দিন পূর্বে ১ জুন তার বড় ভাই ক্বারী আবদুর রাজ্জাক (৬৫) উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেও পরিবারের লোকজন প্রশাসনকে না জানিয়ে স্বাভাবিক নিয়মে মরদেহ দাফন করে। ওই পরিবারের আরও দুই সদস্যের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এছাড়া নতুন আক্রান্তদের মধ্যে পৌরসভার কোদালিয়া গ্রামের বাবা-ছেলেসহ চার জন, হরিপুর তিনজন, দাউদপুর, বাতুপাড়া, রায়কোট দক্ষিণ ইউপি’র শ্রীরামপুর, রায়কোট উত্তর ইউপি’র লক্ষীপদুয়া, হেসাখাল ইউপি’র উরুকচাইল, মৌকরা ইউপি’র মাঝিপাড়ার একজন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. দেব দাস দেব জানান, এ পর্যন্ত উপজেলায় ৯০০ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। রিপোর্ট এসেছে ৮৩৪ জনের। তাদের মধ্যে করোনা শনাক্ত হয়েছে ১১২ জনের। সুস্থ হয়েছে ৫৬ জন।

এখনো চিকিৎসাধীন ৫৬ জন। উপজেলায় এ পর্যন্ত করোনায় মারা গিয়েছেন ৫ জন।

Leave a Comment