বরুড়ায় করোনা বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে বাড়ি বাড়ি ঘুরছে উপজেলা প্রশাসন

স্টাফ রিপোর্টারঃ
কুমিল্লার বরুড়ায় করোনা রোগী সনাক্ত হওয়ার হার বৃদ্ধি পাওয়ায় করোনা বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে বাড়ি বাড়ি ঘুরছে উপজেলা প্রশাসন।

রবিবার থেকে বরুড়া উপজেলা লক ডাউন নিশ্চিত করতে বাড়ি বাড়ি ছুটে যাচ্ছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আনিসুল ইসলাম, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আরিফুল ইসলাম ও মোঃ আবদুল মান্নান।

এতে সার্বিক সহযোগিতায় কাজ করছেন বরিড়া থানার অফিসার ইনচার্জ সত্যজিত বড়ুয়া সহ পুলিশ ও আনসারের ফোর্স।

বরুড়া গত ১৮ জুন পর্যন্ত মোট সনাক্ত হয়েছে প্রায় ৭২জন, সুস্থ হয়েছেন ১৫ জনের মত। এদিকে সরকারি বিধি নিষেধ অমান্য করে নির্দিষ্ট সময়ের পর দোকান খোলা রাখা এবং মুখে মাস্ক ব্যবহার না করায় মোবাইল কোর্টে জরিমানা আদায় করা হচ্ছে, এছাড়াও যাদের মুখে মাস্ক নেই তাদের মাস্কেরও ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের শুরু থেকে বরুড়ায় উপজেলার খোশবাস উত্তর ইউনিয়ন, আগানগর ইউনিয়ন, ভবানীপুর ইউনিয়ন, ঝলম ইউনিয়ন, শিলমুড়ী দক্ষিন ইউনিয়ন, ভাউকসার ইউনিয়ন, লক্ষীপুর ইউনিয়ন, পয়ালগাছা ইউনিয়ন, আড্ডা ইউনিয়ন, আদ্রা ইউনিয়ন, ও পৌরসভার কয়েকটি ওয়ার্ডে করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে।

সনাক্তকারীদের লক ডাউন নিশ্চিত করার পর নিয়মিত খোঁজ নেওয়া সহ বিভিন্ন ভাবে সহযোগিতা করছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ অানিসুল ইসলাম, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (টিএইচও) ডাঃ নিশাত সুলতানা, বরুড়া থানা অফিসার ইনচার্জ সত্যজিৎ বড়ুয়া সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।

বরুড়ায় কর্মহীন ও শ্রমজীবি মানুষের করোনা দূর্যোগ মুহূর্তে সহযোগিতায় এগিয়ে এসেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য নাছিমুল অালম চৌধুরী নজরুল, সাবে সংসদ সদস্য জাকারিয়া তাহের সুমন, সাবেক সংসদ সদস্য একেএম আবুতাহের ফাউন্ডেশন, উপজেলা প্রশাসন, জেলা পরিষদ, এসকিউ গ্রুপের চেয়ারম্যান শফি উদ্দিন শামীম, স্ট্যান্ডার্ড গ্রুপের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার অাতিকুর রহমান, সহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও সমাজের বৃত্তবানরা।

Leave a Comment