বরুড়া উপজেলাকে নিয়ে নাগরিক ভাবনা

মোহাম্মদ মিজানুর রহমান ভূঁইয়াঃ

কুমিল্লা জেলার বরুড়া উপজেলাটি শিক্ষা, সংকৃতি,রাজনৈতিক ইতিহাস, অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি সবকিছুই গর্ব করার মত। উপজেলার অনেক শিল্পপতি, রাজনীতিবিদ, উর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তা ঢাকা/কুমিল্লা বা অন্যান্য শহরে বসবাস করলেও বরুড়াবাসীর প্রয়োজনে তাঁদেরকে আমরা পাশে পেয়ে থাকি। করোনা মহামারী দূর্যোগে বরুড়া উপজেলার ধনাঢ্য/ রাজনৈতিক ব্যক্তিদের সহযোগিতা স্মরণীয় হয়ে থাকবে। এইসবই আশা জাগানিয়া স্মৃতি। বাস্তবতায় এখানকার স্থানীয় অধিবাসীগণ এমন কিছু সমস্যা মোকাবেলা করছে যা নিয়ে কারোর কোন ভাবনা নেই বলেই আমার মনে হত। আমার ভাবনায় নতুন অনুসঙ্গ টেনে দিল বরুড়া প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস আহমদ। সম্প্রতি তিনি বরুড়া উপজেলার বেশ কিছু নাগরিক দূর্ভোগ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক ওয়ালে পোস্ট দিয়ে অনেকের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। আমার কাছে তাঁর উল্লেখিত সমস্যাগুলো বরুড়াবাসীর মৌলিক সমস্যা হিসেবে মনে হয়েছে। সকল সমস্যার শিকড়ে রয়েছে বরুড়া উপজেলাকে নিয়ে কোন উন্নয়ন পরিকল্পনা না থাকা। গরু/ ছাগলের হাট নেই, বাস স্টেশন নেই, গণ কবর স্থান নেই। কোন বিনোদন পার্ক নেই, বরুড়া সরকারি কলেজের জলাবদ্ধতা ও শিক্ষক সংকট, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক সংকট, পাবলিক পরীক্ষায় নকলের প্রবণতা, মাদক, সন্ত্রাস সহ আরো বিস্তর সমস্যা রয়েছে। এই সমস্যা সমাধানের জন্য প্রয়োজন দায়িত্বশীল ব্যক্তিবর্গের একসাথে বসে আলোচনা সাপেক্ষে আগামী ৫০/১০০ বছরের জন্য উন্নয়ন পরিকল্পনা তৈরি করা। কে এই উদ্যোগ গ্রহণ করবে? কেউ কি ভাবছেন আমাদের প্রিয় জন্মভূমি বরুড়া উপজেলার উন্নয়ন নিয়ে? আমরা যদি আমাদের দায়িত্ব পালন করতে ব্যর্থ হই পরবর্তী বংশধরদের নিকট আমাদেরকে প্রশ্নবিদ্ধ হতে হবে।

মোহাম্মদ মিজানুর রহমান ভূঁইয়া
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার, চাটখিল, নোয়াখালী।

সভাপতি, ভলান্টিয়ার্স এসোসিয়েশন অব বরুড়া (ভাব).।

Leave a Comment