বাংলার ফুল

দীপ্তি সরকার

জীবন আমার বাংলার ফুলের মতো
কখনো রঙ আছে তো গন্ধ নেই ;
কখনো বা শুধু গন্ধ আছে রঙ নেই;
হাতে গোনা শুধু আছে কিছু স্মৃতি
রঙ আর গন্ধ যেখানে একসাথে বেঁধেছিল জুটি।
জীবন আমার কখনো একেঁছে ছবি
পলাশ, শিমুল, কৃষ্ণচূড়া, রাধাচূড়া, জারুল,
জবা আর অপরাজিতার রঙে।
কখনো বেঁধেছে সুর
পদ্ম, শাপলা, শালুক আর কাশ ফুলের সঙ্গে।
জীবন আমার কখনো ধুলায় লুটানো কাঠ করবী,
কখনো বা প্রাপ্তির আলোয় ভরা সূর্যমুখী।
জীবন আমার কখনো বা হেলায় বেড়ে উঠা
নয়ন তারার মতো সুখী।
জীবন আমার লিখেছে হাজারো গল্প;
পার করেছে রাতি,
কখনো পাশে ছিল হাসনাহেনা, বাগানবিলাস, রজনীগন্ধা
কখনো বা টগর আর মালতি।
জীবন আমার সেজেছে কখনো, বেঁধেছে খোঁপা
কখনো দিয়ে বেলী, কখনো বা গাঁদা,
কখনো বা দোলনচাঁপা।
জীবনে আমার ভালোবাসার চিঠিগুলো
কখনো ছিলো শিউলির রঙে ঢাকা,
কখনো বা গোলাপের পাঁপড়ি ঠাসা।
চিঠির খামে থাকতো শুধু ফুলেল ভালোবাসা।
জীবন আমার আজো হয় ব্যাকুল
যখন ছড়ায় ঘ্রাণ জুঁই, কদম আর বকুল
জীবন আমার যখন ভরা হাজারো ভুলে
ব্যর্থ, ক্লান্ত আমি তখন নতুন করে
খুঁজে ফিরি নিজেকে আবার
এই বাংলার প্রতিটি ফুলে।

Leave a Comment