লকডাউন শিথিল, নিজের সুরক্ষা নিজেই দিতে হবে

সাকারিয়া শাকির

দেশের সামগ্রিক বিষয় চিন্তা ও বিবেচনা করে সফল রাষ্ট্রনায়ক মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও তার সরকার ৩১ শে মে থকে ‘ সীমিত’ ভাবে সরকারী আধা সরকারী অফিস, বিমান , রেল যোগাযোগ ও ১লা জুন থেকে গণ পরিবহন চালুর সিদ্ধান্ত নেন। সীমিত ভাবে সব কিছু চালু ও হয়েছে কিন্তু আমাদের একটি কথা মনে রাখতে হবে, চালু মানে এই নয় যে দেশের পরিস্থিতি সম্পূর্ণ ভালো হয়ে গেছে বা টিক হয়ে গেছে। বিশ্বের অনেক উন্নয়নশীল দেশগুলো তাদের দেশের অবকাঠামোর কথা চিন্তা করে লকডাউন শিথিল করেছে। সরকার ঘোষিত লকডাউন শিথিল হয়েছে ঠিক কিন্ত আমি মনে করি আমাদের ব্যক্তিগত লকডাউন শুরু হয়েছে।সরকারের পক্ষে একা সবকিছু করা সম্ভব না, সরকারকেও আমাদের অনেক কিছু দেয়ার আছে। এখনই সময় এসেছে যদি আমরা সময়ের কাজ সময়ে করতে পারি তাহলে অবশ্যই সুফল পাবো। যাত্রা করবো আবারো আলোর পথে। এই কথার অর্থ হচ্ছে কঠোরভাবে আমরা নিজ থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে হবে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে, সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে, সর্বোপরি সরকারি সকল নির্দেশনা কঠোরভাবে আমাদেরকে মেনে চলতে হবে। আমাদের সবারই দৈনন্দিন কাজকর্ম থাকে তবে কোন কারণ ছাড়া বাসা বাড়ি থেকে আমাদের বের না হওয়া উচিত। জরুরী প্রয়োজনে বের হলে আমরা মাস্ক, হ্যান্ডগ্লাবস, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে। কাজ শেষ হলে অতি তাড়াতাড়ি বাসা বাড়িতে ফিরতে হবে। পাড়ার মোড়ে, শপিং মলের সামনে অথবা পাড়ার গলিতে আপাতত আড্ডা দেয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। মনে রাখবেন সরকারের কাছে আপনি একটি সংখ্যা কিন্তু আপনার পরিবারের কাছে আপনি অনেক কিছু। মনে রাখবেন সরকার আমাদের জন্য অনেক করছে, করে যাচ্ছে, অনেক নির্দেশনা দিয়েছে বা দিচ্ছেন, আমরা কতটুকু তা মেনেছি বা মেনে যাচ্ছি তা আমাদের কাজকর্মের ওপর প্রমাণিত হবে। ইনশাআল্লাহ অতি শীঘ্রই সকল প্রতিকূলতা কাটিয়ে আমরা আবারও আলোর পথে যাত্রা করবো সুস্থ হয়ে উঠবে পুরো পৃথিবী শান্ত হয়ে আসবে লাল সবুজের দেশ প্রিয় মাতৃভূমি, প্রিয় বাংলাদেশ।

আসুন আমরা সবাই সরকারি সকল নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলি। সরকারকে সহযোগীতা করি, আল্লাহ আমাদের সকলকে সুস্থ রাখুন
সবাই বাসায় থাকুন, সুস্থ থাকুন, পরিবার পরিজন নিয়ে নিরাপদ থাকুন।
আল্লাহ হাফেজ।

Leave a Comment