সিলেট নগরীর চৌহাট্টা এলাকায় বোমসাদৃশ বস্তুকে ঘিরে আতঙ্ক এখনও কাটেনি

সিলেট ব্যুরোঃ-
সিলেট নগরীর চৌহাট্টা এলাকায় বোমসাদৃশ বস্তুকে ঘিরে তৈরি হওয়া আতঙ্ক এখনও কাটেনি। তবে বোমসাদৃশ বস্তুটি ঘিরে রাখার পর দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হলেও এখনও এটি কি তা নিশ্চিত করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

তবে বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) ১১ টার দিকে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের ডিসি (উত্তর) আজবাহার আলী শেখ বলেন, বিকেলের দিকে সেনাবাহিনীর একটি টিম ঘটনাস্থলে আসার কথা রয়েছে। এরপরই এটি কি তা নিশ্চিত করে জানা যাবে।

এর আগে বুধবার (৫ আগস্ট) বিকেলে সিলেট নগরীর চৌহাট্টা পয়েন্টে ট্রাফিক পুলিশের মোটরসাইকেলের মধ্যে ‘বোমা’ থাকার গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। এর ফলে দেখা দিয়েছে আতঙ্ক। এরপর পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলের আশপাশ এলাকার ঘিরে রাখেন। এরপর ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশের ক্রাইসিস রেসপন্স টিম (সিআরটি) সদ্যসদ্যরা।

সরেজমিনে দেখা যায়, সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামন থেকে চৌহাট্টা পয়েন্ট ঘিরে রেখেছে পুলিশ। চৌহাট্টা পয়েন্টে আগে পুলিশ বক্স যেখানে ছিল, এর পাশে রয়েছে ওই মোটরসাইকেলটি। মোটরসাইকেলটির মালিক এসএমপি’র ট্রাফিক সার্জন চয়ন নাইডু। তিনি সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা দিকে নগরীর চৌহাট্টা পয়েন্টের পাশে মোটরসাইকেলটি রেখে পাশের চশমার দোকানে যান। সেখানে কাজ সেরে এসে দেখেন মোটরসাইকেলের উপর ‘বোমা’ সাদৃশ্য বস্তু। তখনই উনি প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানান।

এদিকে রাত থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ছবি ছড়িয়ে পড়েছে। ছবিটিতে দেখা যায়, মোটরসাইকেলে থাকা বোমসাদৃশ বস্তুটি দেখতে ঠিক গ্রাইন্ডার মেশিনের মতো।

আর বোমসাদৃশ বস্তুটি দেখতে পাওয়ার প্রায় ১৬ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কেউ বিষয়টি সমাধান করতে না পারায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেগুলোতে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা।

Leave a Comment